Deprecated: Function wp_get_loading_attr_default is deprecated since version 6.3.0! Use wp_get_loading_optimization_attributes() instead. in /home/u561382334/domains/naukrisandhan.com/public_html/wp-includes/functions.php on line 6031

Watermelon: প্রিয় ফল বলে অতিরিক্ত মাত্রায় তরমুজ খেয়ে ফেলছেন! কোনও ভুল করছেন না তো?

আজকের খবর: Side Effects of Watermelon-কোনও জিনিসই অতিরিক্ত ভাল নয়। পরিমাণের চেয়ে বেশি যে কোনও খাবার শরীরে কু-প্রভাব ফেলতে পারে। যতই স্বাস্থ্যকর খাবার হোক না কেন, অতিরিক্ত পরিমাণে সেটা খেলে সমস্যা তৈরি হবে। একই ঘটনা ঘটে তরমুজের ক্ষেত্রে। অতিরিক্ত পরিমাণে তরমুজ খেলে কী-কী সমস্যা দেখা দিতে পারে, জেনে নিন…

অতিরিক্ত পরিমাণে তরমুজ খেলে ডায়ারিয়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে। তরমুজের জলের পরিমাণ বেশি। এছাড়া এর মধ্যে ডায়টেরি ফাইবার রয়েছে। বেশি পরিমাণে তরমুজ খেলে ডায়ারিয়া, পেট ফুলে যাওয়া, গ্যাসের মতো একাধিক সমস্যা দেখা দিতে পারে।

তরমুজের মধ্যে বেশ ভাল পরিমাণে শর্করা রয়েছে। আপনি যদি ডায়াবেটিসের রোগী হন, তাহলে সীমিত পরিমাণে তরমুজ খান। কারণ এই ‘স্বাস্থ্যকর’ ফলের গ্লাইসেমিক সূচক অনেক বেশি। এটি আপনার রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে দিতে পারে।

আরও খবর

অতিরিক্ত পরিমাণে তরমুজ খেলে লিভারের সমস্যা বেড়ে যেতে পারে। আর আপনি যদি নিয়মিত অ্যালকোহল পান করেন তাহলে তরমুজ খাবেন না। এতে হিতে বিপরীত হতে পারে। উচ্চ মাত্রার লাইকোপিন অ্যালকোহল লিভারে প্রদাহ তৈরি করতে পারে।

গরমে শরীরকে হাইড্রেটেড থাকার জন্য তরমুজ খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। কিন্তু অতিরিক্ত পরিমাণে এই ফল খেলে হিতে বিপরীতও হতে পারে। এতে শরীরে সোডিয়াম, পটাশিয়ামের ভারসাম্য নষ্ট হয়ে যেতে পারে। এতে শরীরে হঠাৎ করে জলের পরিমাণ বেড়ে যেতে পারে। Side Effects of Watermelon

তরমুজে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম রয়েছে। শরীরে যখন এই মিনারেলের পরিমাণ বেড়ে যায় তখন কার্ডিওভাসকুলার রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও বাড়ে। তাই সীমিত পরিমাণে তরমুজ খাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ।

Sharing Is Caring:

Naukri Sandhan.Com The owner of the website is a BA student. He is always attracted towards blogging and launched this blog for providing information regarding government schemes, Job, Teach, Scholarships Something else.

Leave a Comment